ব্যর্থতার পর অধিনায়কত্ব ছাড়লেন মুমিনুল

 

গত কয়দিন ধরে টেস্ট অধিনায়কের ইসু নিয়ে সরগরম ত্রিকেটমহল। অবশেষে টেস্ট অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেবার বিষয়টি বিসিবির সভাপতিকে জানিয়েছেন বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। মুমিনুলের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন অনেক দিনে ধরেই।

শ্রীলঙ্কা সিরিজের পর সেটা আরও জোরালো হয়েছে। ব্যাটে হাতে টানা ব্যর্থ হচ্ছেন মুমিনুল, বলা হচ্ছিল অধিনায়কত্বের চাপ নিতে পারছেন না তিনি। অবশেষে তিনি নিজেই সরে দাঁড়ানোর আগ্রহ প্রকাশ করলেন। যে কারণেই টেস্ট অধিনায়ক নিয়ে নতুন করে ভাবছি বিসিবি। নতুন অধিনায়কে জন্য যে নামটা শুরুতে আসছে তিনি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিবকে অধিনায়ক দেবার ব্যাপারে একমত ত্রিকেট বোর্ড এখন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার রাজি থাকলে পরবতী টেস্ট অধিনায়ক তিনি হচ্ছেন যাতে বিন্দুমাত্র সন্দেহের অবকাশ নেই।

সাকিবের অধিনায়কত্ব ঘোষণা সাথে সহ -অধিনায়কের নামও ঘোষণা করা হবে। যেখানে থাকতে পারেন বর্তমানে টাইগারদের সেরা টেস্ট ব্যাটার লিটন কুমার দাস। আচমকায় টেস্ট দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়েছিলেনন মুমিনুল হক। সাকিবরের নিষেধাঙ্গায় কারণে ভারত সফরে দায়িত্ব পান তিনি।কিন্তু অধিনায়কত্বের চাপ সামাল দিতে না পেরে ভারত সফরের ব্যর্থ হন মুমিনুল । ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজে ভারতের সামনে দাড়াতে পারেননি বাংলাদেশও। অধিনায়ক মুমিনুলের নৈতৃত্বেই টেস্ট ত্রিকেটে বাংলাদেশ সবচেয়ে বড় জয়টি পেয়েছে।

 

নিউজিল্যান্ডের মাউন্ট মুঙ্গানুই টেস্টে স্বাগতিকদের হারিয়ে সৃষ্টি করেছিল ইতিহাস। কিন্তু ওইখানেই শেষ তারপর দিন দিন আরও খারাপ হয়েছে দলের সাথে মুমিনুলের পারফরমেন্স। গত চার টেস্টের সাত ইনিংসে একবারও দুই অঙ্কের ঘরের পৌছাতে পারেনি মুমিনুল হক। ওই চার টেস্টের তিনটাতে পরাজিত হয়েছে টাইগাররা। চারদিকের সমালোচনার পর অবশেষে টেস্ট অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন মুমিনুল হক। আগামী ২ জুন নতুন অধিনায়েকের নাম জানাবে ত্রিকেট বোর্ড। উইন্ডিজ সিরিজ থেকেই নতুন টেস্ট অধিনায়ক পাচ্ছে টাইগাররা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.