বিশ্বকাপকে ঘিরে কাতার সরকারের কঠিন হুশিয়ারী।

কাতার বিশ্বকাপ শুরু হতে এখনো বাকি আরও মাস পাঁচেক। কিন্তু তার আগেই বিশ্বকাপের সময় নানা কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে কাতার সরকার। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে কোন বিতর্কের সৃষ্টি করতে চায় না দেশটি।

 

কাতার ইসলামের নিয়ম অনুযায়ী পরিচালিত হয়ে একটা দেশ। ইসলামেরর নিয়ম বহিভুত কাজ দেশটি নিষিদ্ধ। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে এর ব্যত্যয় ঘটবে না। কাতারে বিশ্বকা দেখতে আসা দশকদের আগে হুশিয়ারি দিয়ে রেখেছে কাতার সরকার। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে কেউ অবৈধভাবে যৌনতায় লিপ্ত হলে সাত বছরের জেল খাটতে হবে। এছাড়াও প্রকাশ্য নারী-পুরুষ অন্তরঙ্গ হয়ে চলাফেরা করতে পারবে না। সমকামিতাদেরও একই সাথে থাকতে দেওয়া হবে না।

 

এছাড়াও কেউ মদ্য পান করলে তাকেও কঠিন শাস্তি দেওয়া হবে। এই বিষয়ে বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটির প্রধান নির্বাহি বলেন” প্রত্যেক দর্শকের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করা আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপুণ। একই সাথে স্হানীয় নাগরিকদের বিষয়টিও আমাদেরকে প্রাধান্য দিতে হবে। বর্হিবিশ্বে অনেক কিছুই বৈধ্য যা কাতার সংস্কৃতির অংশ নয়। যা সবার সম্মান করা উচিত।”

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.