তাসকিনের গতি ও আগ্রাসনের আগুন দেখতে চান কোচ ডোনাল্ড

পেস বোলিংয়ে বাংলাদেশে বিপ্লব ঘটিয়েছেন তাসকিন আহমেদ। উইন্ডজে বিপক্ষে প্রথম টেস্টে পেসারদের ভালো পারফরমেন্সেরর পর কথাটা বলেছিলেন টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তাসকিনে দুদান্ত প্রত্যাবর্তনে মুগ্ধ তিনি। বর্তমানে তাসকিনে আগ্রাসি মনভাবের বোলিং যেকোন ব্যাটারের জন্যই চিন্তার কারণ। তাসকিনকে এইভাবেই বোলিং চালিয়ে যাবার পরামর্শ দিয়েছেন পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড।

 

নেটে বোলিং শেষে তাসকিন আহমেদকে মাঠের এক পাশে ডেকে নিয়ে গেলেন অ্যালান ডোনাল্ড। সেখানে আর কেউ নেই। তাসকিনকে অনেকটা সময় নিয়ে কিছু বোঝালেন বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ, তাসকিন নিজ থেকেও জানতে চাইলেন কিছু। চোটের কারণে গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের মধ্যেই মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় তাসকিনকে। মাঝে খেলতে পারেননি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হোম সিরিজ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সদ্য শেষ হওয়া দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজেও। চোট থেকে ফিরে তিনি এখন অপেক্ষায় আগামী ২ জুলাই থেকে শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে নিজের ফেরাটা রাঙাতে। তার আগে অ্যালান ডোনাল্ড কাল ভালো করে বুঝিয়ে দিলেন বল হাতে তাসকিনের কাজটা আসলে কী হবে।

 

তাসকিনের জন্য সেটা নতুন কিছু নয় অবশ্য। বোলিং কোচ মাঠে তাঁর বোলিংয়ে যে দুটো জিনিস ধারণ করতে বললেন, তাসকিন বেড়েই উঠেছেন সেগুলো নিয়ে—গতি ও আগ্রাসন। অনুশীলন শেষে তাসকিন জানালেন ডোনাল্ডের সঙ্গে তাঁর কথোপকথনের বিষয়ে, ‘আমি মাত্র চোট থেকে ফিরেছি। ম্যাচে আমার ভূমিকাটা কী হবে, ওটাই কোচ বোঝাতে চাচ্ছিলেন। তিনি বলেছেন, “তুমি যে ধরনের বোলার, তোমার ভূমিকা হবে সব সময় গতিময় বোলিং করা এবং আক্রমণাত্মক থাকা। এটা করতে গিয়ে কখনো তুমি অনেক রান দিয়ে দেবে। আবার কখনো একাই ম্যাচ জিতিয়ে দেবে। তবে তুমি তোমার এই ভূমিকা থেকে কখনো সরবে না।”’বোলিং কোচের কাছ থেকে পাওয়া দায়িত্ব পালনে তাঁর সমস্যা হওয়ার কথা নয়। করোনাকালে পরিশ্রমের আগুনে নিজেকে গড়েপিটে তাসকিন এখন যে নতুন রূপে আবির্ভূত, সেটির সবচেয়ে বড় অলংকারই তো গতি আর আগ্রাসনে ভরা বোলিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *