ইতিহাসের প্রথম ত্রিকেটার হিসেবে সাকিবের অন্যন্যা কীর্তি।

মাঠে নামলেই যেন রেকডের পর রেকড গড়েন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। উইন্ডিজের বিপক্ষে গতকাল ৬৮ রানের ইনিংস খেলার মাধমে দুটি রেকডের মালিক হয়েছেন তিনি।

 

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি ত্রিকেটের হিসেবে টি- টোয়ান্টিতে দুই হাজার রানের মাইকফলক স্পশ করেছেন তিনি। সাথে আরও এক রেকডের মালিক হয়েছেন তিনি যা সাকিবের আগে করতে পারেনি আর কোন ত্রিকেটের। টি – টোয়ান্টি দুই হাজার রান আর ১০০ উইকেট নেওয়া একমাত্র ত্রিকেটার তিনি। টি – টোয়ান্টি ত্রিকেটে শত উইকেট মাইকফলক স্পশ করেছিলেন গত বছর অস্টেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে।বর্তমানে টি -টোয়ান্টিতে তার উইকেট সংখ্যা ১২০ তার থেকে বেশি উইকেট নেই আর কোন বোলারের।

 

উইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ শুরুর পূবে মাইকফলক থেকে ৯২ রান দূরে ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সিরিজের প্রথম টি -টোয়ান্টিতে খেলেছিলেন ২৯ রানের ক্যামিও এক ইনিংস। রেকডটা গড়তে খুব বেশি সময় নিতে চাননি তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচে এসে রেকডের মালিক হয়ে যান তিনি। টি – টোয়ান্টিতে ২০০০ রান আর ১০০ উইকেট নেবার রেকড নেই আর কোন ত্রিকেটারের। সাকিবের চেয়ে সবচেয়ে কাছে আছেন আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী। তার ১৬২৮ রানের পাশাপাশি রয়েছে ৭৬ টি উইকেট। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১ হাজার রান ও ৫০ উইকেটের ‘ডাবল’ আছে সাকিব ও হাফিজ ছাড়া ৫ জনের—কেভিন ও’ব্রায়েন, শহীদ আফ্রিদি, ডোয়াইন ব্রাভো, মোহাম্মদ নবী ও থিসারা পেরেরা।

 

এদের মধ্যে আফ্রিদি, ব্রাভো ও পেরেরাও অবসর নিয়েছেন, ও’ব্রায়েন সর্বশেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন গত বছরের অক্টোবরে। এখন খেলছেন শুধু নবী, এ আফগানের রান ১৬২৮, উইকেট ৭৬টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.