কে হতে পারে এভারের টি২০ বিশ্বকাপের ক্যাপ্টেন?

টি-টোয়ান্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে আর বাকি মাত্র মাস তিনেক। কিন্তু এখনো টাইগারদের টি-টোয়ান্টি অধিনায়কত্ব নিয়ে দোটানায় ত্রিকেট বোর্ড।

টি-টোয়ান্টি ত্রিকেটে এমনিতেই টাইগারদের অবস্হা নাজেহাল তার উপর বোডের সিদান্তহীনতা দলকে ভোগাবে নিশ্চিতভাবে। দল জিতছে না। অধিনায়ক নিজে রানে নেই। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে তাই ইদানীং বেশ আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। আজ বিসিবির বোর্ড সভা শেষে সভাপতি নাজমুল হাসানের সংবাদ সম্মেলনেও উঠে এসেছে সে প্রসঙ্গ। বোর্ড সভাপতি অবশ্য এখনই মাহমুদউল্লাহর ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। তবে তাঁর রান–খরা নিয়ে দুশ্চিন্তাটা লুকাননি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে দেশে ফেরার পর এ নিয়ে মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, এমনই জানিয়েছেন নাজমুল হাসান।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেছেন, ‘টি-টোয়েন্টিতে হুট করে কিছু পরিবর্তন করে যে খুব একটা পরিবর্তন হবে, সেটা মনে হয় না। এখানেও লং টার্মে ভাবতে হবে। অধিনায়কত্ব বিষয়ে আজকে বলা কঠিন। সিদ্ধান্ত নিতে এক মাস চলে যাবে। অধিনায়ক আসবে, তাদের সঙ্গে বসতে হবে।’মাহমুদউল্লাহর পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন তোলা হলে নাজমুল হাসান বলেন, ‘মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে এত কথা হচ্ছে, ওর নামটা আসছে, কারণ সে নিজে রান পাচ্ছে না। সে দেশে এলে কথা বলব। আমি মনে করি, রান পেলে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

মাহমুদউল্লাহ রান পেলেই সব ঠিক হয়ে যাবে, মনে করেন নাজমুল।শুধু টি-টোয়েন্টি নয়, বোর্ড সভায় টেস্ট দলের পারফরম্যান্সের প্রসঙ্গও উঠে এসেছে। এ ব্যাপারে নাজমুল হাসানের কথা, ‘টি-টোয়েন্টি ও টেস্টে আমরা ভালো করছি না। টেস্টে আমরা এর মধ্যেই কিছু পরিকল্পনা করেছি। ঘরোয়া ক্রিকেটে কী করলে প্রতিযোগিতাপূর্ণ হবে, সেটাই বুঝতে পারছি না। এখন যে উইকেটে খেলা হয়, সেগুলো এখন আগের তুলনায় অনেক ভালো। আমাদের কাছে মনে হয় না এখানে আহামরি পরিবর্তন করা সম্ভব না। প্রতিযোগিতাপূর্ণ করতে হলে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের খেলাতে হবে।

যদি জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের যদি খেলাতেই না পারি, তাহলে প্রতিযোগিতাপূর্ণ করব কী করে। কঠিন। এটা নিয়ে আমরা আলোচনা করছি। কমিটি হয়েছে, দেখা যাক কী হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.