আসন্ন জিম্বাবুয়ে সিরেজে টি-টোয়েন্টি ফর্মেটের অধিনায়ক হিসেবে মাহমুদউল্লাহ’র স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন নুরুল হাসান সোহান।

মাহমুদউল্লাহর টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটল আজ। তাঁকে ছাড়াই জিম্বাবুয়ে সফরের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করেছেন নির্বাচকেরা। দলে নেই মুশফিকুর রহিমও।

জিম্বাবুয়ে সফরের জন্য টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব দেবেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান। ডাক পেয়েছেন পারভেজ হোসেন। আজ ঢাকার একটি হোটেলে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুস, টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ ও জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলের সদস্যদের সঙ্গে মাহমুদউল্লাহ এক বৈঠকে বসেছিলেন। সেটি শেষে আসে এই সিদ্ধান্ত। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ দিয়ে মাহমুদউল্লাহর অধিনায়কত্ব ক্যারিয়ারের শুরু। নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব চোটে পড়ায় সেই সিরিজে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ।

এরপর সাকিবের আইসিসি নিষেধাজ্ঞার পর স্থায়ীভাবে মাহমুদউল্লাহর হাতে কুড়ি ওভারের ক্রিকেটের নেতৃত্ব তুলে দেওয়া হয়। মাহমুদউল্লাহর অধিনায়কত্বে বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি ৪৩টি ম্যাচ খেলেছে। এর মধ্যে জিতেছে ১৬টিতে। হার ২৬টিতে, একটি ম্যাচ হয়েছে পরিত্যক্ত। জয়ের হিসাবে মাহমুদউল্লাহই টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। অধিনায়ক হিসেবে ৪৩ ম্যাচের ৪২ ইনিংসে ২৩.০০ গড়ে মাহমুদউল্লাহর রান ৭৮২, স্ট্রাইক রেট ১১২.৬৮, সর্বোচ্চ ৫২। অধিনায়ক হওয়ার আগের ৭৫ ম্যাচে ৬৮ ইনিংসে ২৩.৭৯ গড়ে ১২৬১ রান করেছেন তিনি, স্ট্রাইক রেট ১২১.৩৬, সর্বোচ্চ অপরাজিত ৬৪ রান।

মাহমুদউল্লাহ ও মুশফিকের বিশ্রামের ফলে জিম্বাবুয়েতে টি–টোয়েন্টি সিরিজে থাকছেন না দলের শীর্ষ পাঁচ তারকার কেউই। তামিম ইকবাল টি–টোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন। সাকিব আল হাসান আগেই ছুটি নিয়ে রেখেছেন।এদিকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বিশ্রামে থাকলেও জিম্বাবুয়ে সফরের ওয়ানডে দলে ফিরেছেন মুশফিকুর রহিম। পবিত্র হজ পালনের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে ছুটি নিয়েছিলেন। জিম্বাবুয়ে সফরের টি-টোয়েন্টি দল: মুনিম শাহরিয়ার, এনামুল হক, নুরুল হাসান (অধিনায়ক), লিটন দাস, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, শরীফুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, মোসাদ্দেক হোসেন, নাজমুল হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, পারভেজ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.